ছেলেদের মুখে ছোট ছোট ব্রণ ও কালো দাগ দূর করার উপায়

ছেলেদের মুখে ছোট ছোট ব্রণ ও কালো দাগ  দূর করার উপায়


ছেলেদের মুখে  ব্রণ হলে তা দেখতে ভালো দেখায় না।সুন্দর বা কালো তাতে কিছু যায় আসে না যদি না মুখে ব্রণ থাকে। ব্রণের কারনে দেখা যায় অনেক সময় মন খারাপ থাকে, সাজার প্রতি অনিচ্ছায় লাগে।আরো অনেক কিছু। কিন্তু আমরা কেউ সঠিক জানি না কেন মুখে ব্রণ হয়? বা এর কারণ কি?

তাহলে চলুন জেনে নেই মুখে কেন ব্রণ হয়? 

 ব্রণ কেন হয়? 

১/প্রথমত  হরমোনের পরিবর্তন বা কিছু  স্বাস্থ্যবিধির কারণে  ব্রণ হতে পারে। এর মধ্যে অন্যতম  হলো  হরমোনের পরিবর্তন।

 ২/  ত্বকে ধুলোময়লা জমে থাকার কারনে ও ব্রণ হতে পারে।

৩/  বংশগত কারণ ও হয় ব্রণ হয় । 

৪/ এছাড়াও  ত্বকে ভিটামিনের অভাবে ও হতে পারে। 

৫/ কোষ্ঠকাঠিন্য কারণে এই ব্রণ হতে পারে বলে মনে করা হয়।

তাই  যেই  কারণেই ব্রণ হোক না কেন,আমরা সবাই  কম বেশি  চাই  সুন্দর ও ব্রণ মুক্ত থাকতে।

 তবে ছেলেদের ও মেয়েদের ত্বকের পার্থক্যের কারণে তাদের জন্য ভিন্ন  ভিন্ন ধরণের পন্য ব্যবহার করা সবচেয়ে উত্তম।

আরো পড়ুন 

 ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার  ঘরোয়া  উপায়

 আসলে ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার উপায় , সেইটা ছেলে হোক কিনবার  মেয়ে হোক। ব্রণের কথা শুনলেই  আমাদের সবার  মাথায় নানা রকমের  দুশ্চিন্তা হয়।  সাধারণত তৈলাক্ত ত্বক অথবা  ত্বকের ভালো ভাবে অযত্ন  নেয়ার কারনেই  ব্রণ যে কারোর মুখেই দেখা যায় । তাই ব্রণের সমস্যা কারো  বেশি দেখা দিলে তা সমাধানের জন্য  ডার্মাটোলজিস্টের পরামর্শ নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে কেমিক্যাল প্রডাক্ট থেকে দূরে থাকাই ভালো হয়।এর  কারন হলো  এতে করে  মানুষের স্কিনের ক্ষতি হতে পারে ।  সবচেয়ে  ভালো হয়  যদি আপনারা ঘরোয়া উপায়ে কিছু  প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করেই  ব্রণ দূর করার চেষ্টা করতে পারেন । 

তাহলে অবশ্যই  বুঝতে পারছেন আজকের টপিক হলো  ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার উপায় নিয়ে কিছু সহজ টিপস। তাহলে আসুন জেনে নেইঃ

ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার কয়েকটি প্রাকৃতিক উপাদান 

   ১/  পানি

 আমরা সবাই জানি পানির গুরুত্ব অপরিসীম সর্বত্রই। যা ত্বকের  ব্রণ দুর করার ক্ষেত্রেও কম  বিষয়  নয়। প্রতিদিন ৭- ১১  গ্লাস পানি অবশ্যই  পান করবেন । যা মানুষের  শরীরের জন্য যেমনি  ভালো ঠিক  তেমনি মুখের  ব্রণকে কমিয়ে আনতে খুব  সাহায্য করে।

 ২ /মৌসুমি ফল

 রাতে খাবারের পর  অবশ্যই চেষ্টা করবেন মৌসুমি ফল খাওয়ার জন্য। এটি  ত্বককে সতেজ রাখতে খুব  সাহায্য করে।  যাদের মধ্যে  ব্রণের সমস্যা বেশি ও যারা  এটি নিয়ে বেশি  চিন্তিত তারা যতটা সম্ভব  হয় তেলযুক্ত বা ফাষ্ট ফুড জাতীয় খাবার  খাওয়া পরিহার করুন।

  ৩/  মুখ পরিষ্কার রাখা

   বাইরে থেকে আসার পর সব সময়  মুখ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।  তা ছাড়া হালকা গরম পানির স্টিম নিতেও চাইলে নিতে  পারেন। এর ফলে  ত্বকের ভিতর  জমে থাকা ধুলাবালি পরিষ্কার হয়ে যাবে এবং  বাহিরে থাকবেন যখন  তখন ও চেষ্টা করবেন যতটা পারবেন  মুখকে পরিষ্কার রাখার।

 ৪/ ব্রণে হাত না দেয়া

আমাদের মধ্যে প্রায়  অনেকেই আছে, যারা  নখ দিয়ে ব্রণ খোটার  অভ্যাস আছে । এতে করে  ব্রণের অবস্থা ভালো হওয়া থেকে বরং  আরও খারাপ হয়ে যায়। এতে করে দেখা যায়  ব্রণ ফুলে যায় এবং  লাল হয়ে যায়। এমন ও দেখা যায় অনেক সময়  তা ফেটে গিয়ে মুখে কালো  দাগের সৃষ্টি করে।  তাই ভালো হবে ব্রণ না যাওয়া আগ পর্যন্ত মেয়েদের ক্ষেত্রে মেক-আপ ব্যবহার না করাই ভাল। এবং ছেলেদের ক্ষেত্রে তা হাত দিয়ে না ধরা। ছেলেরা  দিনে অন্তত ২  বার তেল-মুক্ত ক্লিনজার দিয়ে  ভালো ভাবে মুখ ধুয়ে  নিতে হবে।

 ৫/ খুব বেশি কারন ছাড়া  দুশ্চিন্তা না করা

 বর্তমানে অনেক  মানুষই বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগে থাকে।  দুশ্চিন্তা যেমন  আমাদের শরীরের  অনেক ক্ষতি করে থাকে। ঠিক  তেমনি ব্রণ ওঠার মূল কারণ হয়ে উঠে। তাই সবার আগে আমাদের দুশ্চিন্তা দূর করতে হবে । দুশ্চিন্তা করে আমাদের কোন লাভ হয় না  ঠিক ক্ষতির থেকে। তাই আমাদের উচিৎ অযথা দুশ্চিন্তা থেকে  নিজেকে দূরে রাখতে হবে।

৬/ পুদিনা পাতার ব্যবহার

 প্রচন্ড  গরমের কারণে ত্বকে অনেক সময় ফুসকুড়ি  ও ব্রণ হয়ে থাকে। এইগুলো দূর করতে পুদিনা পাতা খুবি  উপকারী। তাই সতেজ পুদিনা পাতা বেটে তা  ব্রণের ওপর লাগিয়ে রাখুন  প্রায় ১৫-২০  মিনিট  মতো।  এরপর  মুখ ভালো ভাবে ধুয়ে ফেলুন।

আরো পড়ুনঃ দ্রুত ওজন বাড়ানোর ১০ টি ঘরোয়া উপায়২০২১

ছেলেদের ব্রণের কালো দাগ দূর করার উপায়

ব্রণের কালো দাগ  দূর করার অনেকই অনেক ভাবে অনেক কিছু ব্যবহার করে থাকেন।কিন্তু কিছুতেই এর সমাধান হচ্ছে না।   তাই কিছু ঘরোয় উপায় আপনাদের কাছে শেয়ার করব। আশা করি তা ব্যবহার করে যাদের ব্রণের কালো দাগ আছে ইনশাল্লাহ দূর হয়ে যাবে। 

  ১/ পেঁপে ও চালের গুঁড়ো

অপরিষ্কার ত্বকে  ব্রণ হওয়াটাই  অন্যতম কারণ। এজন্যই ত্বক ভালো ভাবে  পরিষ্কার রাখাতে হবে ।  ব্রনের কালো দাগ দূর করতে  পাকা পেঁপে আপনাকে সাহায্য  করতে পারে। যেমন আধা কাপ পাকা পেঁপে  ভালো করে চটকে  মিহিন করে নিন। এরপর  ১ টেবিল চামচ  পাতিলেবুর রস এর সাথে মিশিয়ে নিন। তারপর  চালের গুঁড়ো সাথে ভালো করে  মিশিয়ে নিন  প্রয়োজন মতো। ।  এরপর সেই মিশ্রণটি মুখে লাগান ১০-২৫ মিনিট, ভালো ভাবে মাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন।  তাছাড়া পেঁপের বদলে  যদি ঘৃতকুমারীর রস এ চাইলে  ব্যবহার করতে পারেন ।  

 ২/ ডিমের সাদা অংশ

ডিমের সাদা অংশ যেমন আমাদের  ত্বকের খসখসে ভাব দূর করে তেমনি সাহায্য করে ব্রনের কালো দাগ দূর করতে। তাই রাতে ঘুমানোর আগে , ডিমের সাদা অংশ যে খানে  ব্রণ হয়েছে সেই জায়গায় ম্যাসেজ করে রাখবেন। তার সাথে যদি  লেবুর রস যোগ করেন  তাহলে  সবচেয়ে ভালো হয়। ১ ঘন্টা রাখার পর ধুয়ে তা ভালো ভাবে ধুয়ে  ফেলতে হবে।

 ৩/ দারুচিনি গুড়া ও গোলাপজল

ত্বকের যত্নে ও কালো দাগ দূর করতে গোলাপ জলের ব্যবহার সম্পর্কে হয়তো সবাই মটামটি সবাই কম বেশি জানেন।  গোলাপজল প্রতিদিন  ব্যবহার করার ফলে ব্রণের কালো  দাগও কমিয়ে আনা যায় খুব সহজেই । দারুচিনি গুড়া আর  গোলাপজল  এক সাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন । আর এই  পেস্ট ব্রণের ওপর বা কালো দাগের উপর  লাগিয়ে  রাখুন ১০-২৫  মিনিট।  এবার রাখার পর  মুখ ধুয়ে ফেলুন। এতে  করে ব্রণের সব ধরনের সমস্যা কমে যাবে ইনশাল্লাহ ।

৪/ আপেল এবং মধুর মিশ্রণ

মধুর উপকারিতার সম্পর্কে কি বলবো তা সবাই জানে । যা ব্রণের ক্ষেত্রে এ  কম উপকারী  নয়। আপনারা কি জানেন মধুর সাথে আপেলের মিশ্রণ হচ্ছে ব্রণের  কালো দাগ দূর করার  জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় ঘরোয়া পদ্ধতি। প্রথমেই আপেলের পেষ্ট তৈরি করে নিতে হবে এবং এর সাথে  ৪-৬  ফোঁটা মধু মিশিয়ে নিতে হবে ।  এরপর মিশ্রণটি মুখে  কিছুক্ষণ  লাগিয়ে নিতে হবে।

এরপর মুখে  ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে  ধুয়ে ফেলতে হবে।  এটা  যেমন ত্বকের টানটান ভাব বজায় রাখতে সাহায্য করে,  তেমনি গায়ের রঙও  হালকা করতে সাহায্য  করে।  তাই সপ্তাহে ৪-৬ বার এটি ব্যবহার করতে পারেন। কিছুদিনের মধ্যেই আপনি নিজেই এর  পরিবর্তন বুজতে পারবেন ।

 " তাই এভাবে  যদি আপনি ঘরোয়া উপায়ে  ব্রণ  কালো দাগ দূর করতে পারবেন । ব্রনের কালো দাগ দূর করে নিন এবং সেই সাথে  নিজেকে দুশ্চিন্তা মুক্ত রাখুন। মনে রাখতে হবে যে   দুশ্চিন্তা  হলো সকল রোগের মূল কারন। 

শেষ কথা

 আপনারা কেউ চাইলে এমন কোনো প্রাকৃতিক উপাদান  ব্যবহার করতে পারেন। যা ব্যবহারে আপনআকে  ব্রনের কালো দাগ থেকে  মুক্তি দিবে পারবে ।  কিন্তু কথা হলো কেমিক্যাল প্রোডাক্ট থেকে দূরে থাকাই ভালো।  কারন কেমিক্যাল প্রোডাক্টে  ত্বককে নষ্ট করে  দিতে পারে। আবার স্কিনের অনেক  ডিজেস টাইপের প্রবলেম ও দেখা দিতে পারে।

বিঃদ্রঃ চাকরির সকল বিজ্ঞপ্তি পেতে আমাদের এই ওয়েবসাইট টি ভিজিট করতে পারেন। bdjobspot.com alert-success

Next Post Previous Post
9 Comments
  • Unknown
    Unknown ৯ এপ্রিল, ২০২২ ২:০৪ PM

    নাইচ

    • Admin
      Admin ৯ এপ্রিল, ২০২২ ৪:৩৩ PM

      ধন্যবাদ

  • নামহীন
    নামহীন ৪ মে, ২০২২ ৫:৪৭ AM

    ব্রন নিয়া কুব কস্টে আচি

    • Admin
      Admin ৪ মে, ২০২২ ৮:০৬ AM

      উপরের নিয়ম গুলো ফলো করুন। দ্রুত ব্রণ থেকে মুক্তি পাবেন।

    • নামহীন
      নামহীন ৯ মে, ২০২২ ১১:১৪ AM

      hmmm amio 😥

  • নামহীন
    নামহীন ২৮ জুলাই, ২০২২ ১:২০ PM

    ধন্যবাদ এতো সুন্দর করে বুঝায় দেওয়ার জন্য🙂

    • Admin
      Admin ২৮ জুলাই, ২০২২ ১:৩৩ PM

      আপনাকে ও ধন্যবাদ

  • Mohon
    Mohon ২৭ আগস্ট, ২০২২ ১১:৩১ PM

    ভাইয়া আমি সবগুলো ব্যাবহার করে দেখেছি কিন্তু কোনো ফলাফল পাইনি

    • Admin
      Admin ২৮ আগস্ট, ২০২২ ১২:৪৩ AM

      তাহলে আপনার উচিৎ স্কিনের ডাক্তার দেখানো

Add Comment
comment url