টাকা ইনকাম করার সেরা ১০ টি ওয়েবসাইট ২০২২

টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট: টাকা ইনকাম করার জন্য বর্তমান সময়ে বিভিন্ন মাধ্যম রয়েছে। অনলাইন বা অফলাইন যে কোন ভাবেই ইনকাম করা যায়। তবে বর্তমান সময়ে ইনকাম করার জন্য সব থেকে বড় মাধ্যম হল অনলাইন।অনলাইনে ইনকাম করার ও বিভিন্ন মাধ্যম রয়েছে আপনি বিভিন্ন কাজ শিখে ও অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন আবার কিছু না শিখে ও ইনকাম করার সুযোগ রয়েছে।

ফ্রি টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট

অনলাইনে ইনকাম করতে গিয়ে অনেকেই ধোঁকার শিকার হয়। কারণ তারা অনলাইন সম্পর্কে ভাল কোন ধারণা বা গাইডলাইন নাই তাই। অনলাইনে প্রচুর ধোঁকাবাজ রয়েছে তারা সহজেই আপনার থেকে টাকা হাতিয়ে নিবে আপনি বুঝতে ও পারবেন না। তাই অনলাইনে কাজ করতে হলে আপনাকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে হবে।

টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট

অনলাইন থেকে ইনকাম করার বিভিন্ন মাধ্যম রয়েছে। কিছু বিষয় আছে যা করতে হলে আপনাকে আগে কাজ শিখতে হবে না হলে আপনি সফলতা অর্জন করতে পারবেন না। আর কিছু মাধ্যম আছে যাতে আপনি পূর্ব ধারনা ছাড়াও ইনকাম করতে পারবেন। যেমন অ্যাপ থেকে টাকা আয়বাংলাদেশী অ্যাপ থেকে টাকা আয়। বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম ইত্যাদি।

তবে আজকের এই আর্টিক্যালে আমি টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো। অনলাইনে অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে ইনকাম করার তবে আজকে বিশ্বস্ত সেরা ৫ টি ওয়েসাইট সম্পর্কে  জানাবো, একটি সময় ও পরিশ্রম দিলে এর থেকে ভাল পরিমাণ ইনকাম করতে পারবেন।  তো চলুন বিস্তারিত জেনে নেই। 

ফ্রি টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট

এখানে নির্ভরযোগ্য ১০ টি ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানাবো যেগুলো থেকে ১০০% ইনকাম করতে পারবেন। তবে ইনকাম করতে হলে ২টা বিষয় অবশ্যই মনে রাখতে হবে।

১. আপনাকে প্রচুর পরিশ্রম করতে হবে।
২. প্রচুর সময় দিতে হবে।

যদি এই দুটি কাজ পরিশ্রম ও সময় ধারাবাহিকভাবেদিতে পারেন তাহলে  খুব সহজেই সফলতা লাভ করতে পারবেন।  বর্তমান সময়ে প্রতিযোগিতা বেশি হয়ে থাকে। তাই পরিশ্রম আর সময় দিতে না পারলে ভাল ইনকাম করতে পারবেন না।

টাকা ইনকাম করার সেরার ১০ টি ওয়েবসাইট

1.Microworkers

মাইক্রোওয়ার্কার এই ওয়েব সাইটটি খুবই পরিচিত এবং সকলের নিকট ট্রাস্টেড। এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের কাজ পবেন। ইচ্ছা হলে আপনি ও কাজ দিতে পারেন। এই ওয়েবসাইটে ছোট ছোট কাজ করার মাধ্যমে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে এই ওয়েবসাইটে প্রায় 1 থেকে 2 মিলিয়ন মানুষ নিয়মিত কাজ করে। এই ওয়েবসাইটে আপনি নিজের যেকোনো কাজ অন্যদের মাধ্যমে করাতে পারবেন পাশাপাশি নিজেও কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন । এখানে বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে।  যেমন :

  • ফেসবুক, ইউটিউব একাউন্ট খোলা।
  • বিভিন্ন জায়গায় রেটিং দেওয়া।
  • জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করা।
  • ইউটিউব সাবস্ক্রাইব
  • ইউটিউব ওয়াচটাইম
  • অ্যাপ ইন্সটল করা।
  • ফেসবুক পেইজ ফলো করা।
ইত্যাদি এরকম আরো বিভিন্ন ধরনের ছোট ছোট কাজ পাওয়া যায়। আপনি যদি সঠিকভাবে নিয়ম মেনে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি অবশ্যই এখান থেকে টাকা পাবেন। এখানে পেমেন্ট দেওয়া হয় ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে , পেপাল ও স্কিল ইত্যাদির মাধ্যমে।পরে বিকাশে টাকা আনতে পারবেন।

এ সমস্ত কাজ আপনি অভিজ্ঞতা ছাড়া ও করতে পারবেন। কারণ প্রত্যেকটা কাজের ডিটেইলস লেখা থাকে কিভাবে কাজ করবেন। আর অভিজ্ঞতা থাকলে তো আর কোন সমস্যা নাই। আর যদি কাজ করতে সমস্যা হয় তাহলে এ ব্যাপারে আপনি  ইউটিউবে অনেক ভিডিও পাবেন তা দেখে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারেন।
বিঃদ্রঃ যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে VPN কানেক্ট করে নিতে পারেন।

2.belancer.com

এই ওয়েবসাইটটি বাংলাদেশীদের জন্য খুবই জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট। এর কারণ হল এটা মূলত বাংলাদেশী একটি ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট টা মূলত ওইসব ব্যক্তিদের জন্যই যারা বড় বড় মার্কেটপ্লেসে কাজ করে সফলতা পাচ্ছেন না অথবা ইংরেজিতে পারদর্শী নয়। এই ওয়েবসাইটে আপনি ছোট ছোট কাজ করে ভাল মানের ইনকাম করতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইটে যেসব কাজ পাবেনঃ-

  • কনটেন্ট রাইটিং
  • গ্রাফিক ডিজাইন
  • ডাটা এন্ট্রি
  • এসইও এর কাজ
  • ওয়েব ডিজাইন
  • মার্কেটিং
  • কাস্টমার সাপোর্ট

ইত্যাদি এরকম আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ এখানে পাবেন। এখানে ভাল করে কাজ করলে অবশ্যই পেমেন্ট পাবেন। পেমেন্ট আপনি পেপাল , বিকাশ ইত্যাদির মাধ্যমে নিতে পারবেন। 

এই ওয়েবসাইটে যেসব কাজ রয়েছে তানযদি সঠিক ভাবে করতে চান তাহলে ভাল করে অভিজ্ঞতা অর্জন করুন। আপনি চাইলে প্রথমে যে কোন একটি পারে আস্তে আস্তে অন্যান্য কাজের উপর ও অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবেন। তারপর কাজ শুরু করবেন দ্রুত সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

3.Kolotibablo.com

বর্তমানে এই ওয়েবসাইট খুবই জনপ্রিয়। যারা অনলাইন জগতে নতুন তারা ও এখানে কাজ করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটে কাজ হল বিভিন্ন ধরনের ক্যাপচা পূরণ করে ইনকাম করা । ক্যাপচা পূরণ করা খুবই সহজ। কেননা এখানে কোন ধরনের অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই। কোনরকম অভিজ্ঞতা ছাড়াই এই ওয়েবসাইটে আপনি খুব সহজে কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন ।

আপনি এই ওয়েবসাইটে যত বেশি ক্যাপচা পূরণ করতে পারবেন তত বেশি ইনকাম করতে পারবেন। যদি আপনি নিয়মিত ভালভাবে কাজ করতে পারেন তাহলে এখান থেকে অবশ্যই পেমেন্ট পাবেন।

পেমেন্ট নিয়ে কোন চিন্তা নেই নিয়মিত কাজ করলে পেপাল আরো বিভিন্ন মাধ্যম রয়েছে টাকা উইথড্র করার।তাই পেমেন্ট নিয়ে টেনশন করা লাগবেনা।নিয়মিত এই ওয়েবসাইটে কাজ করলে ভাল পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন।

4.Inboxdollars.com 

এই ওয়েবসাইটটি ইনকাম করার জন্য অনেক জনপ্রিয়। এই ওয়েবসাইটে কাজ করে খুব সহজেই ইনকাম করতে পারবেন। তবে সমস্যা হল আপনি সরাসরি এই ওয়েবসাইটে ঢুকতে পারবেন না। বাংলাদেশ থেকে এই ওয়েবসাইটে ঢুকতে গেলে ভিপিএন (VPN) ব্যবহার করে কাজ করতে পারবোন।এইখানে কাজ করতে হলে সর্বপ্রথম আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। আর রেজিষ্ট্রেশন করার পর আপনাকে পাঁচ ডলার বোনাস দিবে।

কাজের ধরন :

  • বিজ্ঞাপন দেখে ইনকাম
  • শপিং করার মাধ্যমে ইনকাম
  • গেম খেলে ইনকাম
  • সার্ভে করে ইনকাম
  • বিভিন্ন ধরনের অফার পূরণ করে ইনকাম

এই ওয়েবসাইট থেকে টাকা উঠানোর জন্য একটা শর্ত রয়েছে তা হল সর্বনিম্ন 30 ডলার হতে হবে।তাহলে আপনি এই টাকা খুব সহজেই পেপাল এবং গিফট কার্ড আরো বিভিন্ন মাধ্যমে টাকা উঠাতে পারবেন।

5.sproutgigs.com

এই ওয়েব সাইটটি ইনকাম করার জন্য খুবই ভাল একটি ওয়েবসাইট ।এই ওয়েবসাইটের পূর্ব নাম ছিল picoworker। যারা বড় বড় মার্কেট প্লেসে কাজ পাচ্ছেনা তারা এই ওয়েবসাইটে কাজ করতে পারেন। এই ওয়েবসাইটে আপনি ছোট ছোট কাজ করে সহজেই ভাল পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে। 

কাজের ধরনঃ

  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • ডিজিটাল রাইটিং
  • গ্রাফিক ডিজাইন
  • লাইফস্টাইল
  • ফটো এন্ড ভিডিও
  • ওয়েব ডিজাইন
  • ব্যাকলিংক
  • ইউটিউব ব্যানার ইত্যাদি

এরকম নানান ধরনের আরো বিভিন্ন কাজ পাওয়া যায়। আপনাকে প্রথমে আকর্ষনীয় গিগ তৈরী করতে হবে তারপর কারোর পছন্দ হলে এবং কোন কাজ দিলে সেটা করে ইনকাম করতে পারবেন। আপনি যদি ভালোভাবে কাজ করেন তাহলে ১০০% পেমেন্ট পাবেন। এই ওয়েবসাইটে কাজ করে আপনি পেপাল, ব্যাংক টান্সফার, স্কিল ইত্যাদির মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

6. Swagbucks.com

এই ওয়েবসাইটটি সারা বিশ্বেই অনেক জনপ্রিয়। এখানে আপনি কাজ করার মাধ্যমে আপনাকে পয়েন্ট দেওয়া হবে। সেই পয়েন্ট ডলারে কনভার্ট করে পেপালের মাধ্যমে  উইথড্র করতে পারবেন। সেই পয়েন্ট গুলো অর্জন করার জন্য আপনাকে আগে এই ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্টটা খুলতে হবে। আর অ্যাকাউন্ট খোলার সাথে সাথে 5 ডলার ফ্রি দেওয়া হয়। এরপর এখানে কাজ করতে পারবেন।

কাজের ধরন :

  • ভিডিও অ্যাড দেখে ইনকাম
  • সার্ভে করে ইনকাম
  • শপিং করে
  •  গেম খেলে
  • ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে

এই ওয়েবসাইটে কাজ করে আপনি খুব সহজেই পেপাল , আমাজন গিফট কার্ড ইত্যাদির মাধ্যমে আপনার পয়েন্ট গুলো ডলারে রূপান্তরিত করে ইনকাম করতে পারবেন।

7Prizerebel.com

যারা ভাল সার্ভে জানেন তাদের জন্য সার্ভে করে অনলাইনে ইনকাম করার ভাল একটি ওয়েবসাইট এটা। এখানে বিভিন্ন ধরনের সার্ভে রয়েছে, এই সার্ভে গুলোকে সম্পূর্ণ করে রিওয়ার্ড আয় করতে পারবেন। রিওয়ার্ড পয়েন্টস গুলোকে cash বা gift card হিসেবে redeem করতে পারবেন অথবা ডলারে কনভার্ট করতে পারবেন।
এখানে পেইড সার্ভে করে ইনকাম করার ডলার গুলোকে, “PayPal”, “Amazon”, “Steam”, “eBay” ইত্যাদির মাধ্যমে নিতে পারবেন।

যেকোনো একটি ইমেইল আইডি দিয়ে এখানে একটি একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। একাউন্ট তৈরি করার পর আপনাকে daily survey, long survey ইত্যাদি আরো বিভিন্ন ধরনের সার্ভে গুলো আপনার সামনে প্রকাশ করা হবে। এবং সব গুলো সার্ভে সম্পূর্ণ করতে বলা হবে। এখানে বিভিন্ন ধরনের সার্ভে রয়েছে আর একেক সার্ভের জন্য একেক পয়েন্ট দেওয়া হয়।

8.Dealancer.com

বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সারদের জন্য জনপ্রিয় একটি সাইট। এটা বাংলাদেশী ওয়েবসাইট এবং এটা ফাইবার ও আপওয়ার্ক এর মত সব ধরনের কাজ করতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইট মূলত ঐ সমস্ত ব্যক্তিদের জন্য যারা বড় বড় মার্কেটপ্লেস যেমন, ফাইবার,আপওয়ার্ক, ফ্রিল্যান্সার এই ধরনের আরো যা আছে তাতে সফলতা অর্জন করতে পারছে না তাদের জন্য সেরা ওয়েবসাইট ।

যেহেতু এটা বাংলাদেশী ওয়েবসাইট তাই এখানে কাজ করে খুব সহজেই সফলতা অর্জন করতে পারবেন। কারণ এখানকার অধিকাংশ ক্লায়েন্ট বাংলাদেশি। তাই ইংরেজি কম জানলে ও সমস্যা নেই। তাদের সাথে বাংলায় কথা বলে প্রত্যেকটি কাজ ভালোভাবে বুঝে কাজ করতে পারবেন।

কাজের ধরন :

  • ওয়েব ডিজাইন
  • ইউটিউব সার্ভিস
  • ফেসবুক সার্ভিস
  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • এসইও এক্সপার্ট
  • সাইট স্পিড অপটিমাইজ
  • কনটেন্ট রাইটিং ইত্যাদি।

এরকম আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে এই ওয়েবসাইটে।তাই আপনি আপনার অভিজ্ঞতা অনুযায়ী যে কাজে দক্ষ তা নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

পেমেন্ট সিস্টেম : যেহেতু বাংলাদেশী ওয়েবসাইট তাই পেমেন্ট সিস্টেম ও সুবিধা রয়েছে। আপনি নগদ , মাস্টার কার্ড , ডেবিট কার্ড , বিকাশ যেকোনো মাধ্যমে আপনি সহজেই টাকা নিতে পারবেন ।

কাজ করার সিস্টেম :

এখানে কাজ করার জন্য অবশ্যই আপনাকে সঠিক তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর আপনি যে যে বিষয়ে পারদর্শী সেই কাজের উপর একটি গিগ তৈরি করতে হবে। আর গিগের মধ্যে অবশ্যই কাজের নমুনা পাশাপাশি কত টাকা নিবেন সবকিছুই উল্লেখ করতে হবে।

9.Megatypers.com

এই ওয়েবসাইটটি ডাটা এন্ট্রির জন্য সেরা একটি ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট টি অনেক পুরনো যার ফলে এর ইউজার ও অনেক। এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ধরনের ডাটা এন্ট্রির কাজ বা বিভিন্ন ক্যাপচা পূরণ করে খুব সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

পেমেন্ট নিয়ে চিন্তা করতে হবে না সঠিক নিয়ম মেনে কাজ করলে অবশ্যই পেমেন্ট পাবেন। যত বেশি কাজ করবেন ততবেশি আর্ন হবে। পেপাল আরো বিভিন্ন মাধ্যমে টাকা নিতে পারবেন।

10. panchmishali.com

নাম শুনে অনেকেই হয়তো অবাক হয়েছেন। এই ওয়েবসাইট থেকে ও ইনকাম করতে পারবেন। তা হল আর্টিক্যাল লিখে। যারা লেখালেখি করতে ভালবাসেন তাদের জন্য এই ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করার সুবর্ণ সুযোগ। নিয়মিত এই ওয়েবসাইটে লেখা লেখি করলে মাস শেষে ভাল একটা আর্নিং করতে পারবেন।

কি কি বিষয়ে লিখতে পারবেন

  • স্বাস্থ্যবিষয়ক
  • স্বাস্থ্যকর খাবার
  • টেকনোলজি
  • অনলাইন ইনকাম
  • ইসলামিক

আর্টিক্যাল লেখার নিয়ম

এই ওয়েবসাইটে আর্টিক্যাল লিখতে হলে কিছু নিয়ম মেনে লিখতে হবে। তা হলঃ
১. সর্বনিম্ন ১০০০ ওয়ার্ডের হতে হবে।
২. ১০০% কপিরাইট ফ্রী হতে হবে।
৩. যে বিষয়ে আর্টিক্যাল ওই বিষয়ে অনলাইনে কম আর্টিক্যাল থাকতে হবে।
৪. সার্চ ভলিউম কমপক্ষে ১০০ থাকতে হবে।

আর্টিক্যাল লিখে কত টাকা আয় সম্ভব

এই ওয়েবসাইটে যত ইচ্ছা আর্টিক্যাল লিখতে পারবেন। সর্বনিম্ন ১০০০ ওয়ার্ডের আর্টিক্যাল লিখতে পারবেন।১০০০ ওয়ার্ডের আর্টিক্যালের জন্য ১০০ টাকা করে পাবেন। এর উপরে প্রতি ১০০ ওয়ার্ডের জন্য ১০ টাকা করে পাবেন।

আর্টিক্যাল লেখার জন্য কি করতে হবে?

প্রথমে আপনাকে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। ইমেইল বা ফেইসবুক পেইজের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করে বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। তারপর আর্টিক্যাল লিখতে হবে।

প্রত্যেকটা ওয়েবসাইট কি ট্রাস্টেড ?

হ্যাঁ। এখন পর্যন্ত প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট গ্রহণযোগ্য এবং বিশ্বস্ত। আপনি এখানে নির্দ্বিধায় কাজ করতে পারেন। তবে আমি বলবো যে ওয়েবসাইটেই কাজ করেন না কেন আগে একটু যাচাই করে নিবেন। কেননা অনেক সময় ওয়েবসাইট বিভিন্ন কারণে স্ক্যাম করে। তাই সবকিছু জেনে বুঝে কাজ করুন।

শেষ কথা

চেষ্টা করেছি ১০ টি টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট ও ইনকাম ওয়েবসাইট ও আরনিং ওয়েবসাইট সম্পর্ক বিস্তারিত আলোচনা করার। আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন। অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে হলে আগে সতর্ক থাকতে হবে তারপর পরিশ্রম করতে হবে এবং ধৈর্য ধারণ করতে হবে তাহলেই সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

যে কোন সমস্যা বা বুঝতে অসুবিধা হলে কমেন্ট করুন অথবা আমাদের ফেসবুক পেইজে যোগাযোগ করুন। ক্লিক করুন 

স্বাস্থ্য বিষয়ক বা অন্যান্য আরো তথ্য জানতে আমাদের ফেসবুক গ্রুপ "পাঁচমিশালী" তে জয়েন করুন এবং আপনার সমস্যা শেয়ার করুন। দ্রুত সমাধান পাবেন। 

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url